Happy Eid e Milad un Nabi(SAW)

 In Activities

ঈদে মিলাদুন্নবী সফল হোক!

This slideshow requires JavaScript.

ঈদে মিলাদুন্নবী মুসলিম জাহানের জন্য একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ আনন্দ উৎসব। এই উৎসব প্রতি বছরের মতো 12 রবিউল আউয়াল মাসে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (স.)-এর পৃথিবীতে শুভ আগমনের দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে। বছরের সবগুলো মাসের মধ্যে রবিউল আউয়াল মাসের মর্যাদা ও তাৎপর্য তাই অত্যধিক।

রবি আরবি শব্দ। এর অর্থ বসনত্দ, সঞ্জীবনী ও সবুজের সমারোহ। আর বরিউল আউয়াল বলতে প্রথম সঞ্জীবনের মাস বোঝায়। এই নামকরণের তাৎপর্য হচ্ছে মক্কার কোরাইশ বংশীয় কাফের সমপ্রদায় অনাবৃষ্টি ও অভাবের ফলে কঠিন বিপদের মাঝে কালাতিপাত করছিল। বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (স.) যে বছর জন্মলাভ করলেন সে বছর মক্কার শুষ্ক জমিন সঞ্জীবিত হয়ে উঠলো। শুষ্কবৃক্ষ সজীব ও ফলবনত্দ হয়ে ওঠলো এবং চারদিকে একটা আনন্দ উৎফুল্লতার জোয়ার বয়ে যেতে লাগলো। এই বছরকে বিজয় ও আনন্দের বছরও বলে। তাই এই মাস রবিউল আউয়াল হিসেবে সুপরিচিত। এই আনন্দ ঘনঘটা প্রকাশ পেয়েছে নবীকুলের শিরোমণি অসহায়দের সহায় মহানবী (স.)-এর আগমনেরই ফলে।

মুহাম্মদ (স.) এর পৃথিবীতে আবির্ভাব আদর্শ মহামানব রূপে, সৃষ্টিজগতের তিনি সর্বোত্তম সৃষ্টি। তাঁর আগমনে অন্ধকারাচ্ছন্ন পৃথিবীতে আলোর উত্তরণ ঘটে, তাওহীদের পয়গাম চতুর্দিকে ছড়িয়ে পড়ে, রিসালাতের আলোকরশ্মি দিক দিগনত্দে বিচ্ছুরিত হয়। তিনি এলেন গোটা মানব জাতির মহান পথপ্রদর্শক রূপে, মহান আল্লাহর মনোনীত দীন ইসলামের পরিপূর্ণ রূপদান করতে। তিনি ৬৩২ খ্রিস্টাব্দে আবার ১২ রবিউল আউয়াল সোমবার ইসলামের পরিপূর্ণতা প্রদান করে মহান আল্লাহর সানি্নধ্যে চলে গেলেন। তাই ঈদে মিলাদুন্নবী প্রতি বছর নির্দিষ্ট তারিখে নির্দিষ্ট দিনে ফিরে আসে নবীপ্রেমে সবাইকে উজ্জীবিত করার জন্য।

Contact Us

Thank you for contacting CPHD. We will get back to you shortly.

Not readable? Change text.